হালকা গরম লেবু পানি খাওয়ার উপকারিতা

প্রতিদিন জমতে থাকা অতিরিক্ত মেদ আমাদের শরীরকে বেশ ভারী করে তোলে। ফলে কোনো ধরনের কাজেই আমরা খুব একটা শান্তি পেয়ে থাকি না। এই অতিরিক্ত মেদ কাটাতে সাহায্য করে স্বাস্থ্যকর এই পানীয়টি। জেনে নিন হালকা গরম লেবু পানি কি ধরনের উপকার করে থাকে।

১. হজমক্রিয়ায় সাহায্য করে থাকে :

সকালে খালি পেটে এক গ্লাস হালকা গরম লেবু পানি খেলে তা পেটের গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল নালীকে পরিশোধন করে। হজমক্রিয়াকে স্বাভাবিক করে, হার্টের বিভিন্ন ধরনের ব্যথা নিরসন করে এবং শরীরের যত বর্জ্য পদার্থ সেগুলোকে নির্মূল করে ফেলে।

২. লিভার ডিটক্সিফাই করে :

লেবু পানিতে প্রচুর পরিমাণে সাইট্রিক অ্যাসিড আছে যা শরীরে এনজাইমের কাজকে ত্বরান্বিত করে। এছাড়া যকৃতের বিভিন্ন বিষাক্ত পদার্থ নির্মূল করে।

৩. পিএইচ এর স্তরে কাজ করে :

অ্যাসিডিটির সমস্যা অনেক বড় ধরনের একটি সমস্যা। হালকা গরম লেবুপানি এই অ্যাসিডিটির সমস্যা নির্মূল করে ফেলে। লেবুতে প্রকৃতিগতভাবেই সাইট্রিক অ্যাসিড, নিউট্রিয়েন্টস, মিনারেল এবং কিছু ক্ষারীয় উপাদান রয়েছে যা অ্যাসিডিটির সমস্যা খুব সহজেই নির্মূল করে ফেলে। সাইট্রিক অ্যাসিডের ফলে দেহের বিভিন্ন বর্জ্য পদার্থ ঘামের মাধ্যমে শরীর থেকে বের হয়ে যায়। গবেষকরা বলেন, এই লেবু পানি রক্তের পিএইচ ভারসাম্যকে পরিবর্তন করতে সাহায্য করে এবং মূত্রনালীর বিভিন্ন সংক্রমণ প্রতিহত করে।

৪. ইমিউন সিস্টেমকে শক্তিশালী করে :

সব ধরনের সাইট্রাস ফলে ভিটামিন সি এর পরিমাণ অনেক বেশি থাকে। এই ভিটামিন সি ঠান্ডা থেকে শরীরকে রক্ষা করে এবং ইমিউন সিস্টেমকে শক্তিশালী করে তোলে। এছাড়া লেবুতে রয়েছে পটাশিয়াম যা মস্তিষ্ক এবং মাংসপেশীর কার্যক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। হালকা গরম লেবু পানি রক্তচাপকেও নিয়ন্ত্রণ করে থাকে।

৫. ত্বক পরিস্কার এবং সতেজ করে তোলে :

গবেষকরা বলেন ভিটামিন সি ত্বকের মধ্যে এক ধরনের তারুণ্য ফুটিয়ে তোলে কেননা এটি ত্বকে কোলেজেন তৈরিতে সহায়তা করে থাকে। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মরে যাওয়া ত্বককে পুনরুজ্জীবিত করে পাশাপাশি সতেজ ও প্রাণবন্ত করে তোলে। এই হালকা গরম লেবু পানি রক্তপ্রবাহে থাকা বিভিন্ন টক্সিনও দূর করে ফেলে।

৬. ওজন কমাতে সহায়তা করে :

প্রতিদিন সকালে এক গ্লাস হালকা গরম লেবু পানি খেলে তা দেহে ক্ষুধামন্দা তৈরি করে যার ফলে শরীরের ওজন কমে যায়। যারা অতিরিক্ত মেদ কমানোর জন্য ডায়েট করছেন তারা এই প্রক্রিয়াটি অনুসরণ করতে পারেন। তবে কখনই অতিরিক্ত লেবু পানি খাবেন না এতে করে হিতে বিপরীত হয়ে যেতে পারে অর্থাৎ আপনার অ্যাসিডিটির সমস্যা অনেক বেশি বেড়ে যেতে পারে যা থেকে আলসারও হতে ।